আজ ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ডিআইজি পরিচয়ে প্রতারণা, অতঃপর…

(আজকের দিনকাল):কখনো পুলিশের ডিআইজি আবার কখনো ডিআইজির পিএস পরিচয়ে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে প্রতারক চক্রের প্রধানসহ এক সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা জেলা উত্তর গোয়েন্দা পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি ভুয়া সাংবাদিক পরিচয়পত্র ও দুটি মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

সোমবার দুপুরে ঢাকা জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেন ঢাকা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) মোবাশশিরা হাবীব খান।

গ্রেফতাররা হলেন- গাজীপুর জেলার কালীগঞ্জ থানার নগরভেলা গ্রামের খোরশেদ আলমের ছেলে ও চক্রের প্রধান দ্বীন ইসলাম ওরফে শাওন (২৬) এবং তার সহযোগী একই জেলার কেতুন এলাকার মো. হানিফ সরকারের ছেলে হৃদয় আহমেদ (৩০)। তারা যৌথভাবে দীর্ঘদিন যাবত এই পরিচয়ে সাভার-আশুলিয়া ও ধামরাইয়ের বিভিন্ন স্থানে প্রতারণা করে আসছিল।

গত ১৫ জুন সকালে সাভার মডেল থানাধীন থানাস্ট্যান্ড এলাকায় এক ব্যবসায়ীকে ডিআইজি পরিচয় দিয়ে মোটা অংকের টাকা আত্মসাৎ করে। বিষয়টি ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি অবগত হওয়ার পর তার দেহরক্ষী পুলিশ সদস্য মো. সোহানুর রহমান বাদী হয়ে সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে ঢাকা জেলা উত্তর গোয়েন্দা পুলিশ তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় গাজীপুরের কালীগঞ্জ থানার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে প্রতারক দ্বীন ইসলাম ওরফে শাওন (২৬) ও তার সহযোগী হৃদয় আহমেদকে গ্রেফতার করে।

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) মোবাশশিরা হাবীব খান বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতাররা দীর্ঘদিন যাবত সাভার-আশুলিয়া, ধামরাই ও গাজীপুরসহ আশপাশের এলাকায় পরিচয় দিয়ে সাধারণ মানুষের সঙ্গে বিভিন্নভাবে প্রতারণা ও মাদক ব্যবসার কথা স্বীকার করেছে। দ্বীন ইসলামের বিরুদ্ধে গাজীপুরের কালীগঞ্জ থানায় মাদকদ্রব্য ও প্রতারণার পৃথক দুটি মামলা রয়েছে। এছাড়া তার সহযোগী হৃদয়ের বিরুদ্ধে মতিঝিল ও সবুজবাগ থানায় পৃথক দুটি মামলা রয়েছে। প্রতারক চক্র আদালত থেকে এসব মামলায় জামিনে এসে ডিআইজির পরিচয়ে নতুন করে প্রতারণা শুরু করে।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ