আজ ৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


হযরত শাহজালালে রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়েছে সৌদি বিমান

(আজকের দিনকাল):বৃষ্টির পানিতে ভেজা থাকায় রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়েছে সৌদি এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৭৭-৩০০ মডেলের একটি ফ্লাইট। এতে অল্পের জন্য বড় ধরনের দুর্ঘটনা বা ক্ষয়ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পেয়েছেন ৩৩৮ জন যাত্রী এবং পাইলটসহ কেবিন ক্রুরা।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বুধবার এ ঘটনা ঘটে। এ সময় রানওয়ের বাইরে কংক্রিটের অবকাঠামোর সঙ্গে ধাক্কা লেগে বিমানের ৬টি চাকা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ঘটনাটি নিয়ে তদন্তের কাজ করছে দুটি তদন্ত কমিটি।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নির্বাহী পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, বিমান দুর্ঘটনার জন্য এয়ারলাইন্স এবং বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। তবে ফ্লাইটটি অবতরণের সময় বামদিকের চাকাটি একটু স্লাইড করেছে। এতে পেছনের চাকাগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তবে কোনো যাত্রীর ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

সূত্র জানায়, দুর্ঘটনার সময় ফ্লাইটটিতে ৩৮৩ জন যাত্রী ছিলেন। তাদের মধ্যে ৬১ জন নারী, ২৮৯ জন পুরুষ, ২৮ শিশু এবং ৫ নবজাতক ছিল। এছাড়া ২ পাইলটসহ ১৩ জন কেবিন ক্রু ছিলেন। সবাই নিরাপদে বিমান থেকে নামতে পেরেছেন।

বিমানবন্দর সূত্র জানায়, সৌদি এয়ারলাইন্সের এসভি-৮০৬ ফ্লাইটটি সৌদি আরবের রিয়াদ থেকে ঢাকায় আসে। ফ্লাইটটি শাহজালাল বিমানবন্দরের রানওয়ে-১৪-এ অবতরণের সময় বৃষ্টি হচ্ছিল। রানওয়ে ভেজা থাকায় উড়োজাহাজটি রানওয়ের বামদিকে অবতরণের সঙ্গে সঙ্গে ছিটকে ঘাসের ভেতর চলে যায়। এতে প্লেনের প্রধান ল্যান্ডিং গিয়ারের বাম পাশের ৬টি টায়ার ফেটে যায়।

পরবর্তীকালে মাটি থেকে ল্যান্ডিং গিয়ারের বাম পাশ আবারও রানওয়েতে উঠে আসে। শেষ পর্যন্ত রানওয়ের শেষ প্রান্ত ঘুরে উড়োজাহাজটি ৫ নম্বর বোডিং ব্রিজে যাত্রী নামায়। শাহজালাল বিমানবন্দরেই উড়োজাহাজটির মেরামত কাজ চলছে। ঘটনার প্রকৃত কারণ অনুসন্ধানে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে অ্যাকসিডেন্ট ইনভেস্টিগেশন কমিটি অব বাংলাদেশ (এএআইসি-বিডি)।

সূত্র জানায়, এরই মধ্যে উড়োজাহাজটির ককপিট ভয়েস রেকর্ডার (সিভিআর) এবং ফ্লাইট ডেটা রেকর্ডার জব্দ করেছে তদন্ত দল। একই সঙ্গে দুর্ঘটনাকবলিত ফ্লাইটের দুইজন পাইলটকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

পাশাপাশি আইকাও এনেক্স-১৩ অনুযায়ী, তদন্ত দল ৩০ দিনের মধ্যে প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেবে এবং চূড়ান্ত তদন্ত শেষে পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন তৈরি করবে।

এদিকে এ দুর্ঘটনা তদন্তে সৌদি আরবের এভিয়েশন ইনভেস্টিগেশন ব্যুরোর প্রতিনিধিরাও অংশগ্রহণের প্রস্তাব করেছে। সংস্থাটির তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল তদন্তে অংশ নেবে।

Share

এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ