আজ ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


নৌকার লোকেরা পালানোর জায়গা পাবে না: আ. লীগ নেতা

(আজকের দিনকাল):জেলার মাধবদী থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক সিরাজুল ইসলাম বলেছেন, নৌকার লোকেরা পালানোর জায়গা পাবে না। বর্তমান এমপি হিরুর লোকেরা পালানোর জায়গা পাবে না। মাধবদী মেয়রের বক্তবের পর উপজেলার ৫টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় স্বতন্ত্র প্রার্থী পক্ষে গণজাগরণের সৃষ্টি হয়েছে। এ জাগরণে আর কেউ বাধা দিতে পারবে না। মাধবদীর মেয়র মোশারফ সাহেব ইতোমধ্যে মাঠে নেমে গেছেন। তাই এখানে কামরুল ছাড়া আর কিছু থাকবে না। আগামীকাল থেকে মাধবদী থানার ৫টি ইউনিয়নে আমরাও একজন কামরুল ভাই হয়ে মাঠে নামব ইনশাআল্লাহ। যত রকমের প্রপাগান্ডা ছড়াক নৌকাওয়ালারা পালানোর সুযোগ পাবে না।

বুধবার বিকালে নরসিংদী-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী কামরুজ্জামান কামরুলকে বিজয় করার লক্ষ্যে মাধবদী পৌর হল রুমে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় মাধবদী থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক সিরাজুল ইসলাম এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম হীরুকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, হীরুরাও পালানোর সুযোগ পাবে না।

এরই মধ্যে সিরাজুল ইসলামের বক্তব্যের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেছে। আওয়ামী লীগের লোক হয়ে আওয়ামী লীগের প্রতীকের বিরুদ্ধে কথা বলায় তৃণমূল আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইছে। জেলা জুড়ে সৃষ্টি হয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। অন্যদিকে নরসিংদী-১ সদর আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের পেটানোর হুমকি দিয়ে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আহসানুল ইসলাম রিমন গ্রেফতার হয়ে কারাগারে রয়েছেন। এরই মধ্যে আওয়ামী লীগের আরেক নেতার বেফাঁস মন্তব্যের পর দলের ভেতরে অস্থিরতা সৃষ্টি হয়েছে।

এ সময় নরসিংদী সদর-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান কামরুল, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পদক মাহমুদুল কবীর সাহীদ এবং মাধবদী পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মোশারফ হোসেন মানিক ও নরসিংদী পৌরসভার মেয়র আমজাদ হোসেন বাচ্চু মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন। বক্তব্য দেওয়ার সময় পেছনে থাকা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা জিবে কামড় দিয়ে ফেলেন।

মাধবদী পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরমেয়র মোশারফ হোসেন মানিক বলেন, আমরা আওয়ামী লীগ করি। তাই নৌকার বিরুদ্ধে কথা বলার সুযোগ নেই। নৌকার লোকেরা পালানোর জায়গা পাবে না বক্তব্যের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কখন এ কথা বলেছে তা আমি শুনিনি।

তিনি আরও বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে কাজ করলেও নৌকার বিরুদ্ধে আমাদের কোনো বক্তব্য নেই।

সাবেক ছাত্র নেতা ও নৌকা প্রতীকের সমর্থক নজরুল ইসলাম এমপির সমর্থক এস এম কাইয়ুম ফেসবুকে লিখেছেন, নৌকার লোকেরা পালানোর জায়গা না পেলে আপনাদের খুব সুবিধা হবে বলে মনে হয়? দলের দায়িত্বশীল পদে থেকে এমন ভয়ংকর কথা বলার সুযোগ আছে? এ কথাটা তো মির্জা ফখরুল সাহেবদের কথা।

বক্তব্যের বিষয়ে জানতে সিরাজুল ইসলামের ব্যবহৃত নম্বরে একাধিক বার ফোন করলেও তিনি তা রিসিভ করেনি।-যুগান্তর

Share

এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ